‘শান্তি চুক্তি বাস্তবায়ন না হলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাবে’

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম মে ২৮

পাবর্ত্য চট্টগ্রাম ভূমি বিরোধ নিষ্পত্তি কমিশন আইন সংশোধন আকারে সংসদের চলতি অধিবেশনেই উপস্থাপন হতে পারে বলে জানিয়েছেন সংসদ উপনেতা সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী।

পার্বত্য চট্টগ্রাম শান্তি চুক্তি বাস্তবায়ন কমিটি’র চতুর্থ সভা শেষে সাংবাদিকদের এ কথা জানান কমিটির এ সভাপতি।

এদিকে পার্বত্য শান্তি চুক্তি বাস্তবায়ন না হলে ওই অঞ্চলের পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাবে বলে আশংকা প্রকাশ করেছেন জনসংহতি সমিতির সভাপতি জ্যোতিরিন্দ্র বোধিপ্রিয় লারমা (সন্তু লারমা)।

সোমবার জাতীয় সংসদে অনুষ্ঠিত এ সভায় পাবর্ত্য শান্তি চুক্তি বাস্তবায়ন কমিটির সদস্য এবং ভারত প্রত্যাগত উপজাতীয় শরণার্থী প্রত্যাবাসন ও পুর্নবাসন এবং অভ্যন্তরীণ উদ্বাস্তু নির্দিষ্টকরণ ও পুর্নবাসন সংক্রান্ত টাস্কফোর্সের চেয়ারম্যান এমপি যতীন্দ্র লাল ত্রিপুরা সভায় অংশ নেন।

এছাড়া বৈঠকে বিশেষ আমন্ত্রণে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর আন্তর্জাতিক বিষয়ক উপদেষ্টা গওহর রিজভী।

সংসদ উপনেতা সাজেদা চৌধুরী বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের বলেন, “আমরা পাবর্ত্য চট্টগ্রাম ভূমি বিরোধ নিষ্পত্তি কমিশন আইন সংশোধনীর কাজ প্রায় শেষ করে এনেছি। এ ক্ষেত্রে বৈঠকে কারো মধ্যেই কোনো মতপাথর্ক্য হয়নি। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনার পর বিলটি সংসদের চলতি অধিবেশনে পেশ করা হতে পারে।”

বৈঠক শেষে সন্তু লারমা সাংবাদিকদের জানান, আগের বৈঠকে পাবর্ত্য চট্টগ্রাম ভূমি বিরোধ নিষ্পত্তি কমিশন আইন, ২০০১ এর সংশোধিত খসড়ায় ১৩টি প্রস্তাব নিয়ে আলোচনা হয়েছিলো। তবে তিনটি প্রস্তাবের ক্ষেত্রে ভূমি মন্ত্রণালয় নতুন করে মতামত দিয়েছিলো।

“এর মধ্যে ভূমি কমিশনের কার্যকলাপ পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রনালয়ে ন্যস্ত করার ক্ষেত্রে বিরোধিতা করে তারা যে প্রস্তাব দিয়েছিলো সেটি আমরা গ্রহণের সিদ্ধান্ত নেই। কিন্তু তাদের অপর দুটি প্রস্তাবের বিরোধিতা করেছি আমরা। ভূমি মন্ত্রণালয় ৬(১) (গ) ধারার উপধারাগুলো বিলোপের বিপক্ষে।”