Sundarbans Tiger cubs in Dhaka for smuggling

  • মা নেই। তাই ফিডারে দুধ খাওয়ানো হচ্ছে বাঘের বাচ্চাগুলোকেমা নেই। তাই ফিডারে দুধ খাওয়ানো হচ্ছে বাঘের বাচ্চাগুলোকে

    ছবি: হাসান রাজা

  • আগারগাঁওয়ের র্যাব-২-এর কার্যালয়ে বাঘের বাচ্চাগুলোআগারগাঁওয়ের র্যাব-২-এর কার্যালয়ে বাঘের বাচ্চাগুলো

সুন্দরবনের ২০ বর্গকিলোমিটার এলাকাজুড়ে ছিল তাদের বাড়ি। সেখান থেকে তুলে এনে তাদের রাখা হয়েছিল তিন ফুট বাই চার ফুট আয়তনের একটি খাঁচায়। তারা তিন বাঘের বাচ্চা, বেঙ্গল টাইগারের ছানা। গতকাল তাদের উদ্ধার করা হয়েছে রাজধানীর শ্যামলীর একটি বাড়ি থেকে। সংঘবদ্ধ চক্র পাচারের জন্য বাঘের বাচ্চাগুলো সুন্দরবন থেকে ধরে এনেছে বলে র‌্যাবের প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা গেছে।
পাচারের সঙ্গে যুক্ত থাকার অভিযোগে জাকির হোসেন ও তাঁর মা জাহানারা বেগমকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব-২-এর কর্মকর্তারা। র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এ এইচ এম আনোয়ার পাশা এই দুজনকে দুই বছরের কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন। তবে মূল পাচারকারী জাহানারা বেগমের স্বামী আবদুল কাদের ও তাঁর ছেলে মাসুদ রানাকে ধরা যায়নি, তাঁরা পলাতক।
ঢাকার ইন্টারন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব হেলথ সায়েন্সের ছাত্র গ্রেপ্তার হওয়া জাকির (১৯) জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছেন, ১৫ দিন আগে বাঘের বাচ্চা তিনটি আনা হয়েছে বন্য প্রাণী ও প্রকৃতি সংরক্ষণ অঞ্চলের বন সংরক্ষক তপন কুমার দের জন্য। সাতক্ষীরার সুন্দরবনসংলগ্ন এলাকার জেলেদের কাছ থেকে এগুলো আনা হয়। বন বিভাগের এই শীর্ষস্থানীয় কর্মকর্তা এক লাখ ৭৫ হাজার টাকা দিয়ে বাচ্চা তিনটি কিনবেন—এমন আশ্বাসও দিয়েছেন।
জাকির জানান, তাঁর বাবা আবদুল কাদের ২০ বছর ধরে বন্য প্রাণী ও পাখির ব্যবসায় যুক্ত আছেন। ২০০২ সালে রাজধানীর কাঁটাবন এলাকায় একটি চিতা বাঘসহ তিনি গ্রেপ্তার হন। দেড় মাস জেল খেটে বের হয়ে আবার এ পেশায় ফিরে যান। তিনি বলেন, সুন্দরবনসহ দেশের বেশির ভাগ বনে তাঁদের বন্য প্রাণী ধরার লোক বা পোচার আছে। তারা প্রাণীগুলো ধরে কাদেরকে খবর দিলে তিনি গিয়ে বাসে করে ঢাকায় নিয়ে আসেন।
২০০২ সালে কক্সবাজারের ডুলাহাজারা সাফারি পার্ক স্থাপনের সময় কাদের বন সংরক্ষক তপন দের কাছে ঘড়িয়াল, হরিণ, কুমির, শজারুসহ বিভিন্ন প্রাণী বিক্রি করেছেন বলে দাবি করেন জাকির। গাজীপুরের বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্কে সরবরাহের কথা বলে তপন দে তাঁদের তিনটি বাঘের বাচ্চা এনে দিতে বলেন। তপন দে ও তাঁর ভাগনে পরিচয়দানকারী তাপস এসে বাচ্চাগুলো দেখেও গেছেন।
তপন কুমার দের কাছে এ ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি প্রথম আলোকে বলেন, ‘অপরাধীরা নিজেরা বাঁচার জন্য আমার নাম ব্যবহার করছে। বন্য প্রাণী রক্ষায় আমি কাজ করি, আর আমাকে বন্য প্রাণী পাচারকারী বানানোর চেষ্টা চলছে।’
প্রধান বন সংরক্ষক ইউনুস আলী এ ব্যাপারে প্রথম আলোকে বলেন, ‘তপন দে যদি এই বাঘ পাচারের সঙ্গে যুক্ত থাকেন এবং তা যদি প্রমাণিত হয়, তাহলে অবশ্যই শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’
জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণিবিদ্যা বিভাগের শিক্ষক মনিরুল খান বাঘের বাচ্চা উদ্ধারের বিষয়ে প্রথম আলোকে বলেন, ‘কোনো মা-বাঘকে না মেরে তার কোনো বাচ্চাকে ধরে আনা খুব কঠিন। শক্তিশালী কোনো চক্র এবং তাদের পেছনে প্রভাবশালী মহল ছাড়া সুন্দরবন থেকে জীবন্ত বাঘ ধরে গাড়িতে করে এনে ঢাকায় ১৫ দিন রাখতে পারার কথা নয়। বিশ্বজুড়ে বিপন্নপ্রায় এই প্রাণী এভাবে পাচার হওয়া বিপর্যয়কর। সরকারকে অবশ্যই বিষয়টি যথাযথ গুরুত্বের সঙ্গে দেখতে হবে।’
গতকাল বেলা ১১টায় শ্যামলী ২ নম্বর সড়কের ১৩/১২ নম্বর বাসার নিচতলার ফ্ল্যাটে র‌্যাব-২-এর উপ-অধিনায়ক সাইফুল করিম ও মেজর সৈয়দ আশিকুর রহমান এবং জ্যেষ্ঠ সহকারী পুলিশ সুপার রায়হান উদ্দিন খান অভিযানে যান। আবদুল কাদেরের বাসায় একটি কক্ষে প্রায় ২০টি খাঁচা রাখা। তার একটি থেকে বাঘের বাচ্চাগুলো উদ্ধার করা হয়।
গতকাল বিকেল পর্যন্ত বন বিভাগ বা চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ কেউই তিন মাস বয়সী এই বাঘের বাচ্চাগুলোর দায়িত্ব নিতে রাজি হয়নি। বন বিভাগ থেকে বাচ্চাগুলোকে কক্সবাজারের ডুলাহাজারা সাফারি পার্কে নেওয়ার প্রস্তাব করা হয়েছে। আর চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ রোগ-জীবাণু আছে কি না বা শারীরিকভাবে বাঘগুলো সুস্থ আছে কি না, সেই পরীক্ষা ছাড়া কোনো বন্য প্রাণী নেয় না বলে জানিয়ে দিয়েছে। গতকাল সন্ধ্যায় বাঘের বাচ্চাগুলো হাতিরপুলে একটি ব্যক্তিগত ছোট চিড়িয়াখানায় রাখা হয়েছে। পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য বন্য প্রাণী বিশেষজ্ঞদের নিয়ে পাঁচ সদস্যের একটি কমিটি করা হয়েছে।

 

Bangladesh police foil effort to to smuggle tiger cubs

Rescued tiger cubs
It’s thought that the cubs were going to be smuggled to Malaysia

Three rare Royal Bengal tiger cubs have been rescued from a smuggler in the Shyamoli area of the Bangladeshi capital Dhaka, police say.

Officers from the Rapid Action Battalion say that they arrested a person in possession of the cubs who was attempting to take them abroad.

It is thought that the cubs were captured from the south-western Sundarbans mangrove forests.

Police suspect they were going to be smuggled to Malaysia.

The cubs are said to be three months old.

A Rapid Action Battalion (RAB) team raided the building in Shyamoli Road after receiving a tip-off on Monday.

Police say the man arrested with the cubs could lead them to an organised gang responsible for smuggling cubs out of Bangladesh.

Last year a special force was set up to save the Royal Bengal tiger and other animals.

The 300-member force is deployed mostly around the Sundarbans, one of the last refuges of the tigers.

The decision came months after the authorities recovered three tiger skins and a large quantity of bones, the biggest haul of illegal tiger parts in decades.

The Sundarbans forests stretch between Bangladesh and India.

Around 400 tigers are thought still to live in the area.

 

3 tiger cubs rescued

Poacher brought them from Sundarbans to Dhaka; claims top forest boss placed order

The Bengal tiger cubs recovered from the house of a wildlife trader in the capital yesterday. Inset, Zakir Hossain arrested from the house. Photo: Rashed ShumonStaff Correspondent

The Rapid Action Battalion yesterday rescued three Bengal tiger cubs from a wildlife smuggler’s house at Shyamoli in the capital and arrested two persons in this connection. The cubs, about two months old, had been captured in the Sundarbans.

The trafficker’s son Zakir Hossain told the press that the cubs had been brought in for Tapan Kumar Dey, the chief of wildlife section of the forest department. Tapan, however, refuted the claim and said he was not involved in any wildlife crime.

Tapan often handles government funds to buy animals for Bangabandhu Safari Park in Gazipur.

Zakir said his elder brother Masud Hossain brought the cubs from the Sundarbans 12 days ago to supply them to Tapan.

His father Abdul Kader had supplied four marsh crocodiles, a gharial, and pythons to Tapan in 2002. Zakir claimed Tapan’s nephew Tapash used to “place orders” for animals.

Tapan had never paid for the gharial as he was hiding during the caretaker government, said Zakir whose father was arrested in 2001 with a leopard in the capital and served two months in jail.

Refuting the allegations against him, Tapan branded Zakir and his family as notorious wildlife traffickers. “Traffickers always raise such allegations against forest officials to camouflage their activities,” he said. He insisted that there was no need for tigers for the safari park now.

Tapan said the cubs would have been smuggled out of the country if Rab had not recovered them, as Zakir’s family had links with a network of international wildlife traffickers

Rab had followed the trail of the cubs following a report in a Satkhira newspaper that three cubs had been captured by poachers on May 16 in Haldebunia forests of Koikhali union in Satkhira. At the time, forest officials dismissed the report as false but Rab continued its effort.

Violating the wildlife law that strictly prohibits poaching, capturing, trapping or trading of wildlife, those cubs of a globally endangered mammal were captured and then brought to Dhaka.

AHM Anwar Pasha, executive magistrate of Rab, jailed Zakir and his mother Mosammed Jahanara Begum for two years as they confessed to the crime while main culprits Jahanara’s husband Abdul Kader and elder son Masud had fled.

As instructed by Pasha, the cubs were sent to a private mini zoo in Hatirpul. This is the first reported case that Bengal tiger cubs have been rescued in the capital.

Having been fed with human baby milk, the cubs — one male and two females — are now suffering from diarrhoea, said Zakirul Farid, veterinary surgeon of Dhaka Zoo.

Farid examined the cubs and said they were lacking proper nutrition and suffering from dehydration. Each cub should have weighed above 3kg but they were around 1.5kg on average, he added.

PLACE OF RECOVERY
Tipped-off, members of Rab-2 yesterday raided a four-storey building at Shyamoli and found the cubs on the ground floor.

A pet animal and bird trader, Abdul Kader has been living in the rented house on the ground floor for the last three years.

Rab arrested Abdul Kader’s wife Jahanara Begum, 47, and their elder son Zakir Hossain, 19. Kader went into hiding with his another son Masud during the raid.

Neighbours said they had seen Kader bring cages for animals and birds to the house but had never seen him entering the house or going out with any tiger or cub.

Magistrate AHM Anwar Pasha told The Daily Star that they had been conducting raids in Satkhira and Dhaka for about a month in search of the cubs.

Rab had information that the poachers had reached a negotiation with a party for selling each cub for Tk 20-Tk 60 lakh, he added.

Asked about the allegations against Tapan, Chief Conservator of Forest Yunus Ali said they would thoroughly investigate the matter and take steps if the allegation was proved to be true.

The forest department has opened an investigation against Tapan, said Anwar Pasha.

In a 2004 survey, the United Nations Development Programme estimated 450 tigers, including 21 cubs, in the Bangladesh territory of the Sundarbans.

The forest department has been running a World Bank-funded regional project to control illegal trading of wildlife and another project to save tigers by reducing man-tiger conflicts in the Sundarbans.

What to feed the cubs on and how to take care

The forest department does not have any officer who has the expertise to take care of the cubs.

Yunus Ali, chief conservator of forest, yesterday said they had communicated with Indian experts who suggested feeding the cubs on goat-milk.

Reza Khan, head of Dubai Zoo, and other eminent wildlife experts from Bangladesh told The Daily Star that such cubs should be fed with animal milk called Cimicat which contained less carbohydrate and more protein.

Soft chick or pigeon meat would be perfect for them. Cat’s food, preferably foreign-made or animal fillets could also be given to them, Reza Khan said over the phone.

Or if any pet dog or cat is found, the tiger cubs could be feed with their milk also, he said.

The Wildlife Trust of Bangladesh (WTB) recommended keeping the cubs under the wildlife rescue centre in India until they were old enough to be released into the Sundarbans. Bangladesh signed an MOU for the conservation of tigers and the Sundarbans during Indian prime minister’s visit to Dhaka last year.

The tiger cubs are too young to survive on their own, WTB said.

Bangladesh, one of the 14 Tigerian countries, has pledged to play an important role in Tiger conservation.

Environment and Forest Minister Hasan Mahmud earlier claimed on different occasions at home and abroad that the number of tigers in the Sundarbans in Bangladesh was increasing as their habitation was well protected.