Steps to beef up tourism in Kuakata

ঢাকা, অগাস্ট ১৩ (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)

কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকতকে আধুনিক ও দৃষ্টিনন্দন পর্যটন নগরী হিসেবে গড়ে তুলতে সরকারের কাছে ১৩টি প্রস্তাব দিয়েছে কুয়াকাটা ইনভেস্টরস অ্যাসোসিয়েশন নামের একটি সংগঠন।

সোমবার জাতীয় প্রেসক্লাবে ‘পরিকল্পিত কুয়াকাটা উন্নয়ন’ শীর্ষক এক সংবাদ সম্মেলনে এসব প্রস্তাব তুলে ধরা হয়।

তাদের প্রস্তাবের মধ্যে ওই অঞ্চলের রাখাইন সম্প্রদায়ের নিজস্ব সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য বজায় রাখা; উন্নয়ন কর্মকাণ্ডে স্থানীয়দের সম্পৃক্ত করা; কুয়কাটায় জমি কেনা-বেচা সংক্রান্ত সরকারি নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার; কুয়াকাটাকে প্রথম শ্রেণীর পৌরসভায় উন্নীত করা; ঢাকা-বরিশাল রেল যোগাযোগ ব্যাবস্থা কুয়াকাটা পর্যন্ত সম্প্রসারণ; সড়ক যোগাযোগ সহজ করতে পটুয়াখালীর নীলগঞ্জ, আন্ধারমানিক ও মোহীপুরে সেতু নির্মাণ এবং সমুদ্র সৈকত এলাকায় ‘মেরিন পেভমেন্ট ড্রাইভওয়ে’ নির্মাণ অন্যতম।

অ্যাসোসিয়েশনের সদস্য শিবলী হ্যাচারি অ্যান্ড ফার্মস লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোস্তফা শিবলী সংবাদ সম্মেলন শেষে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, সম্প্রতি কুয়াকাটায় পর্যটন, আবাসন, হোটেল, রিসোর্ট, মৎস্য ও কৃষিসহ বিভিন্ন খ্যাতে বিনিয়োগকারী প্রতিষ্ঠানগুলো একটি ‘প্ল্যাটফর্মে’ এসে কাজ শুরু করেছে।

“কুয়াকাটার উন্নয়নে সরকার ঘোষিত মহাপরিকল্পনাকে আমরা স্বাগত জানাই এবং এ মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নে সরকারকে পর্যাপ্ত সহযোগিতা দেওয়ার ক্ষেত্রে আমরা একযোগে কাজ করতে প্রস্তুত। এ লক্ষ্যে আমরা সরকারের সাথে মত-বিনিময় সভাতেও অংশ নিতে আগ্রহী।”

শিবলী জানান, পরিবেশবান্ধব ও জনকল্যাণমূলক বিভিন্ন বিনিয়োগের নিরাপত্তা নিশ্চিত করাই অ্যাসোসিয়েশনের মূল লক্ষ্য।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পড়ে শোনান সংগঠনের সদস্য সচিব প্রকৌশলী কে এম হাসান সুমন।

অন্যদের মধ্যে সংগঠনের সভাপতি এম জি আর নাসির মজুমদার, সদস্য সৈয়দ তানভির ইমাম, মনজুর আলম, আলী নিয়ামত সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন।