চলছে, ইতিহাসের পানে হাত বাড়ানো…

জীবনের বিজ্ঞান


শীর্ষ ছবি: ১৯০৯ সালে স্মিথসোনিয়ান ইনস্টিটিউটের পরিচালক ডেরেক ডি ওয়ালকট কানাডার ব্রিটিশ কলম্বিয়ায় বার্জেস শেল (Burgess Shale) খুজে পেয়েছিলেন প্রথম। প্রায় অর্ধ বিলিয়ন বছর প্রাচীন এই শিলাস্তরে খুজে পাওয়া গেছে অসংখ্য বিচিত্র প্রজাতির জীবাশ্ম।বার্জেস শেল এর জীবাশ্মগুলোর অন্যতম বৈশিষ্ট হলো, জীবাশ্মগুলোর নরম শরীরের অংশগুলোও সংরক্ষিত হয়েছে প্রায় সম্পুর্ণভাবে, এছাড়া এদের গঠনগত জটিলতা প্রমান করেছে এরাই প্রি ক্যামব্রিয়ান সরল জীবন থেকে  জটিল জীবনের বিবর্তনের একটি অসাধারন স্ন্যাপশট;  এদের অনেকেই পরবর্তীতে নানা গ্রুপের প্রানীদের পুর্বসুরী হিসাবে চিহ্নিত হয়েছে। উপরে দুটি বার্জেস শেল এর জীবাশ্মর উদহারন: প্রথমটি Marrella splendens, ২০ মিমি দীর্ঘ (অ্যান্টেনা বাদে) এই জীবাশ্মটির অ্যান্টেনা এবং অন্যান্য উপাঙ্গও চমৎকারভাবে সংরক্ষিত হয়েছে জীবাশ্মটিতে; নীচে এর একটি সম্ভাব্য থ্রি ডি মডেল। পরেরটি Anomalocaris canadensis এর,  প্রায় ২২২ মিমি, ক্যামব্রিয়ান পর্বের সবচেয়ে বড় শিকারী প্রজাতি বা প্রিডেটর, যার চোখ, লোব, পেছনের পাখার মত উপাঙ্গ সংরক্ষিত হয়েছে জীবাশ্মটিকে, নীচে সম্ভাব্য একটি মডেল (ছবি সুত্র:
Royal Ontario Museum, Toronto)

(এটি মুলত শিকাগো বিশ্ববিদ্যালয়ের বিবর্তন জীনতত্ত্বর…

View original post 3,651 more words