‘তখণ গোটা দেশটাই এরকম খুন-ধর্ষণের স্বর্গরাজ্যে পরিণত হয়’

By Kallol Mustafa

ধর্ষণের দেশ বাংলাদেশ, ক্ষমতার দাপটে যা খুশী তা করার দেশ বাংলাদেশ!

দেশে এমন একটা পরিস্থিতি তৈরী হয়েছে যে কোথাও কারো কোন নিরাপত্তা নেই..

ঘরে ঢুকে মানুষকে জবাই করা হচ্ছে…

ব্যাংকের ভেতরে ঢুকে গুলি করে/জবাই করে হত্যা করা হচ্ছে…

দিনে দুপুরে রাস্তায় মানুষকে চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করা হচ্ছে..

রাষ্ট্রীয় বাহিনীর মাধ্যমে প্রতিপক্ষকে/অপরাধের স্বাক্ষীকে গুম-ক্রসফায়ার করা হচ্ছে…

রাজনীতি ও অর্থনীতিতে গায়ের জোরে ক্ষমতার দাপটে যা খুশী করার স্বাধীনতা প্রতিষ্ঠিত হলে খুন-ধর্ষণেরও অবাধ পরিবেশ তৈরী হয়…

এরকম একটা পরিস্থিতিতেই…

রূপগঞ্জে ফকির ফ্যাশন কারখানার পোশাক শ্রমিককে গণধর্ষণ করে বাস থেকে ফেলে দেয়া হয়..

রংপুরের গঙ্গাচড়ায় তৃতীয় শ্রেণীর স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণ করে গলা কেটে হত্যা করা হয়..

জামালপুরে মাদ্রাসার দশম শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষণ করে খুন করে নদীতে ভাসিয়ে দেয়া হয়..

মোহাম্মদপুর প্রিপারেটরি স্কুলের প্রথম শ্রেণির শিক্ষার্থীকে যৌন নিপীড়ন করা হয়..

পাহাড়ে একের পর এক ধর্ষণের শিকার হয় পাহাড়ি নারী শিশু..

বর্ষবরণে নারীদের উপর চলে দলবদ্ধ যৌণ নিপীড়ন..

ধর্ষণের সাথে পোশাক কিংবা চেহারার কোন সম্পর্ক নেই, ধর্ষণের সাথে সম্পর্ক ক্ষমতার..পুরুষালি ক্ষমতার, দলীয় ও গোষ্ঠীগত ক্ষমতার- এই পুরুষালি ক্ষমতার সাথে যখন বিচারহীনতার আস্কারা যুক্ত হয় তখন..

তখণ গোটা দেশটাই এরকম খুন-ধর্ষণের স্বর্গরাজ্যে পরিণত হয়..

এই মাৎসান্যায় থেকে কারোরই রক্ষা নেই..