কেমন হলো ফোক ফেস্ট? – মাহবুব রশীদ

ফোক ফেস্টিভ্যাল ভাল লাগে নাই। সাউন্ড খারাপ ছিল, লাইটিং খারাপ ছিল, প্রোডাকশন খারাপ ছিল। অডিয়েন্স বেয়াদব টাইপ আর স্থুল রুচির ছিলো।

মিউজিক ফেস্টিভ্যালে সাউন্ডের ত্রুটি বড় অপরাধ। লাইটিং নিয়ে বাঙালীর কোন সেন্সিটিভিটি নাই। তাদের আলোক সজ্জা মানে বিয়ে বাড়ির মতো মরিচা বাতি। লাইট-শেড-ফোকাস দিয়ে কোন স্ট্রাকচারের সৌন্দর্য বাড়িয়ে তোলার কথা তারা ভাবতেই পারে না। আবিদা পারভিনের ভক্তিগীতি চলার সময় যে অডিয়েন্স ডিজে পার্টির নাচ শুরু করে তারা ভালো অডিয়েন্স নয়। পার্বতী বাউলের শ্রীকৃষ্ণ কীর্তণে যারা শিশ দেয়, তারা রীতিমতো বেয়াদব।

যে আয়োজকেরা রব ফকির বা শফি মণ্ডলদের স্টেজ থেকে পুরো পরিবেশনা শেষ করা্র আগেই সময়ের অভাবের কথা বলে নামিয়ে দেয় তাদের কালচারাল হাইট নিয়ে আমার সন্দেহ আছে। কালচারাল হাইটের জন্য লম্বা চর্চা লাগে, পরম্পরা লাগে। প্রেজেন্টারদের ভুল বাংলা শুনে মনে হয়েছে তারা লাক্স-আনন্দধারা প্রেজেন্ট করছেন।

পুরো প্রোডাকশন ছিল বেঙ্গলের ক্লাসিক্যাল মিউজিক ফেস্টিভ্যালের টেমপ্লেট। কিন্তু ক্ল্যাসিক্যালের মঞ্চ পরিকল্পনা আর বাউল গানের আসরের মঞ্চ পরিকল্পনা এক নয় সে টুকু বোঝার মতো স্পর্শকাতরতা আয়োজকদের ছিলো না। মাঠের মাঝে একটা গোল স্টেজ করে লোকগীতির ভাবটা সহজেই আনা যেতো। এবং আমি বুঝিনি এটা ফোক ফেস্টিভ্যাল না ফোক ফিউশন ফেস্টিভ্যাল। কণক ‘দা, রাহুল ‘দারা যে মঞ্চে ওঠেন সেখানে আবিদা পারভিন কীভাবে খাপ খায়?